ঢাকা   রোববার ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১, ১৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

কী করবেন, যদি নিজের সন্তান আপনাকে মারে?

কী করবেন, যদি নিজের সন্তান আপনাকে মারে?

নিজের মারমুখি সন্তানের হাতে মার খেতে হবে- বেশিরভাগ বাবা-মাকে কখনোই এরকম ভয়ে থাকতে হয় না। কিন্তু যখন এরকমটা ঘটে, তখন বাবা-মাকে আসলেই খুব কঠিন এক দ্বন্দ্বের মধ্যে পড়তে হয়। সন্তান এমন আচরণ করলে তাকে ছেড়ে চলে যাবেন, সেটা যেমন পারেন না, তেমনি যদি এই সমস্যার জন্য সাহায্য চান, সেটি সন্তানের ওপর কী প্রভাব ফেলবে সেটাও নিয়েও বাবা-মা শংকায় থাকেন। গবেষণায় দেখা যায়, এধরণের সমস্যাগুলো সচরাচর লুকিয়ে রাখা হয়, এবং এরকম সমস্যা আমরা যা ধারণা করি তার চেয়ে অনেক বেশি। গত গ্রীষ্মে দশ বছর বয়সী এইডান সিদ্ধান্ত নিল তাদের পরিবারের পোষা কুকুরটাকে মেরে ফেলবে। একটা সসেজের লোভ দেখিয়ে কুকুরটাকে সে সোফার পেছনে নিয়ে গেল, তারপর দুই হাতে কুকুরটির নাকমুখ আর গলা চেপে ধরলো। `কিন্তু অদ্ভুত ব্যাপার হচ্ছে, ও কিন্তু আর সবার চেয়ে কুকুরটাকে এবং আমাকেই সবচেয়ে বেশি ভালোবাসে', বলছিলেন এইডানের মা হ্যাজেল। `কিন্তু আমাদের দুজনকেই ও বেশি আঘাত করবে, এবং অনেক সময় ও কুকুরটাকে আঘাত করবে শুধু আমাকে কষ্ট দেয়ার জন্য।' এইডান রেগে গেলে লাথি মারে, ঘুষি মারে। আগে কামড়ে দিত। সে তার মা হ্যাজেলকে বলে, তাকে সে ঘৃণা করে এবং সে চায় তার মা যেন মরে যায়। সে একটা বন্দুক নিয়ে এসে তার মাকে গুলি করে মেরে ফেলবে। এইডান তার মাকে সিঁড়ি থেকে ঠেলে নীচে ফেলে দেয়ার চেষ্টা করেছে। এখন এইডান জানে, তার মায়ের দুর্বলতা আসলে কোথায়। হ্যাজেলের চোখে সমস্যা আছে। কাজেই এইডান তার দিকে জিনিসপত্র ছুঁড়ে মারে, যেগুলো হ্যাজেল দেখতে পায় না। সম্প্রতি এইডান তার মায়ের দিকে ছুঁড়ে মেরেছিল একটি কেটলি। সৌভাগ্যবশত তখন এটিতে ফুটন্ত পানি ছিল না। তবে এইডান জানতো না যে কেটলিটি ঠান্ডা, সে কেটলি তুলে ছুঁড়ে মেরেছিল। `এগুলো দেখে খুবই নিপীড়নমূলক আচরণ, একধরণের গুন্ডামি বলে মনে হবে। আমার মনে হয় আমি যেন একধরণের পারিবারিক সহিংসতার সম্পর্কে আবদ্ধ হয়ে আছি। আপনার স্বামী আপনাকে প্রথমবার আঘাত করার পরই কিন্তু আপনি বলতে পারেন, এই সম্পর্কে আপনি আর থাকবেন না, সংসার থেকে বেরিয়ে যাবেন। কিন্তু আপনার সন্তানের সঙ্গে তো আপনি সেই কাজটা করতে পারেন না, তাই না? কারণ এই শিশুকে রক্ষার দায়িত্ব আপনার কাঁধেই, কিন্তু একই সঙ্গে আপনি তার সহিংসতারও শিকার", বলছেন হ্যাজেল। একবার এইডান রান্নাঘরে ড্রয়ার থেকে ছুরি নিয়ে পরিবারের আরেক সদস্যের দিকে তেড়ে গিয়েছিল। তারপর থেকে বাড়ির সব ছুরি এইডানের হাতের নাগালের বাইরে তালা মেরে রাখা হয়। কিন্তু এইডান যা পায় সেটাই ব্যবহার করে, সেটা কাঁচি বা নখ কাটার ক্লিপার্স, যেটাই হোক। `ওর যে কোনো আচরণই সহিংসতার দিকে গড়ায়। ও সহিংস পথটাই বেছে নেবে, যে কোন পরিস্থিতিতে ও কেবল সহিংসতাই দেখে। আমরা এমনকি বাচ্চাদের অনুষ্ঠান পর্যন্ত দেখতে পারি না, সেখানে যদি সামান্য সহিংসতার কোন দৃশ্য থাকে, ও সেই কাজটাই বাস্তবে করে দেখাবে, বার বার করবে’ বলছেন হ্যাজেল। হ্যাজেল এবং তার স্বামী যখন এইডানকে দত্তক নেন, তখন ওর বয়স চার। শুরুতেই এটা স্পষ্ট হয়ে গিয়েছিল যে এইডানের যে ধরণের সেবা-যত্নের দরকার বলে তারা ভেবেছিলেন, ওর অবস্থা আসলে তার চেয়ে অনেক বেশি জটিল। ‘প্রথম দিন থেকেই আমরা জানতাম ওর গুরুতর কিছু সমস্যা আছে’, বলছেন হ্যাজেল। ‘কিন্তু আমরা ভেবেছিলাম ও একটা অদ্ভুত পরিবেশে ছিল, ওকে যে ধরণের পরিবেশে এর আগে দত্তক দেয়া হয়েছিল, সেখানকার পরিবেশ হয়তো ভালো ছিল না…দেখা যাক পরিস্থিতি কোন দিকে যায়।’ কিন্তু ব্যাপারটা আসলে ভালো দিকে যায়নি। একেবারে শুরু থেকেই এইডান ঘুষি মারতো, চুল ধরে টানতো, থুতু ছিটাতো। হ্যাজেল এবং তার স্বামী আশা করেছিলেন ওর এই সহিংস আচরণ ধীরে ধীরে বন্ধ হবে, কিন্তু অবস্থা আসলে খারাপ হচ্ছিল। একটি স্কুলের যে বিশেষ শাখায় এইডানকে ভর্তি করা হয়েছিল, সেখানে পাঁচ বছর বয়সের মধ্যেই এইডানের মার খেয়ে দুজন সহকারীকে হাসপাতালে যেতে হয়েছে। এদের একজনের মুখে জোরে লাথি মেরেছিল এইডান। ও রেগে কিছু একটা ছুঁড়ে ফেলেছিল মেঝেতে। উবু হয়ে মাটি থেকে জিনিসটি যখন তুলতে যাচ্ছিলেন স্কুলের এই সহকারী, তখন এইডান একেবারে সোজা তার মুখে জোরে লাথি মারে। এইডান যখন রেগে-মেগে এরকম সহিংস আচরণ করতে থাকে, তখন কীভাবে ওকে সামলাতে হবে, তার জন্য স্কুলের স্টাফদের বিশেষ প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে। হ্যাজেলের মনে আছে প্রথম যেদিন এইডানকে প্রায় বাড়তি ৫০ মিনিট ধরে আটকে রাখা হয়েছিল। ‘এইডান ওর ক্লাশরুমে একটা ছোট্ট সোফায় বসে ছিল। ওর কাপড় খুলে ফেলা হয়েছিল, কেবল গেঞ্জি পরা, কারণ ও ঘামছিল। পাশে দাঁড়িয়ে একজন সহকারী। এইডান কাঁপছিল, থরথর করে কাঁপছিল। কী যে ভয়ানক এক দৃশ্য। আমি ওর পাশে বসলাম, তখন ও আমার হাঁটুর ওপর জড়োসড়ো হয়ে বসলো, যেভাবে জঠরের ভেতর সন্তান থাকে, সেরকম। কী মর্মান্তিক এক দৃশ্য।’ এখন যখন পেছন ফিরে তাকান, তখন হ্যাজেল ভাবেন, স্কুলের স্টাফদেরকে এভাবে এইডানকে সামলানোর অনুমতি দেয়াটা ঠিক ছিল কীনা। তবে এছাড়া ওরা আর কীভাবে এইডানকে সামলাতো, সেটাও তিনি বুঝতে পারেন না। ‘এই ঘটনায় ওর ওপর নিশ্চয়ই সাংঘাতিক বাজে প্রভাব পড়েছে, কিন্তু আমি জানি ও কতটা সহিংস ছিল’, বলছেন হ্যাজেল। ‘স্কুলের শিক্ষকদের সারা গায়ে ছিল আঁচড়ের দাগ, আমি জানিনা, এইডানকে নিরাপদ রাখার জন্য ওরা আর কী করতে পারতো।’ এই ঘটনার পর স্কুলে একটি বিশেষ রুম তৈরি করা হয় নরম প্যাড দিয়ে। এইডান যখন নিজেই নিজের জন্য বা অন্যদের জন্য বিপদজনক হয়ে উঠছে, তখন ওকে এই রুমে রাখা হতো। ‘কিন্তু ওকে আসলে প্রতিদিনই এই রুমে পাঠাতে হচ্ছিল। ও এতটাই ক্রুদ্ধ ছিল যে, দরোজার শক্ত কাঁচ ও তিনবার ভেঙ্গে ফেলেছিল।’ এরকম এক পরিস্থিতিতে একদিন স্কুল কর্তৃপক্ষ হ্যাজেলকে জানালো, তারা আর এইডানের দেখাশোনা করতে পারবে না। ২০১০ সালে অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির গবেষকরা প্রথমবারের মতো সন্তানের হাতে বাবা-মার সহিসংতার শিকার হওয়ার বিষয়ে একটি গবেষণা চালান। তারা পুলিশের কাছ থেকে পাওয়া এ সংক্রান্ত তথ্য বিশ্লেষণ করেছিলেন। সে বছরের বারো মাসের মধ্যে কেবল লণ্ডনেই এধরণের ১ হাজার ৯০০ ঘটনা পুলিশের খাতায় রেকর্ড করা হয়েছিল। এই গবেষণায় নেতৃত্ব দেন ক্রিমিনোলজির অধ্যাপক র‍্যাচেল কনড্রি। তার অনুমান, প্রতি বছর গোটা দেশজুড়ে হয়তো এরকম ঘটনা ঘটছে হাজার হাজার, যার বেশিরভাগই আসলে পুলিশের কাছে আসছে না। ‘এই সমস্যাটাকে আসলে আড়াল করা হচ্ছে- কত বাবা-মা যে আছে, যারা মনে করে এটা তারা পুলিশকে জানাতে পারবে না। বা হয়তো এরা কারও কাছে এই সমস্যার জন্য সাহায্যও চায় না, কিংবা তারা হয়তো সেরকম সেবা খুঁজেও পায় না’, বলছেন তিনি। অনেক বাবা-মা র‍্যাচেল কনড্রিকে জানিয়েছেন, তারা অনেক বছর ধরে সন্তানের সহিংসতার শিকার হওয়ার পরই কেবল পুলিশের কাছে সন্তানের ব্যাপারে অভিযোগ করেছেন। তারা যখন কেবল নিজেদের জীবন নিয়ে আশংকায় ছিলেন, তখনই কেবল পুলিশের কাছে গেছেন। ‘নিজের সন্তানকে তারা আসলে অপরাধী বলে চিহ্নিত করতে চান না, এর কী পরিণাম হবে সেটা নিয়ে আসলে তারা চিন্তিত‍,’ বলছেন তিনি। র‍্যাচেল কন্ড্রির গবেষণার আগে এই বিষয়ে খুব কম গবেষণাই হয়েছে। এরকম একটা সমস্যা যে আছে, সেটা নিয়েই আসলে কোন সচেতনতা ছিল না। ‘কোন সরকারি ওয়েবসাইটে এর কোন উল্লেখ ছিল না, কোন সরকারি নীতিতেও না-কোথাও এর কোন উল্লেখ নেই‍’, বলছেন তিনি। ‘কিন্তু আমি যখন এরকম শিশু এবং তাদের পরিবারের সঙ্গে যারা কাজ করে তাদের সঙ্গে কথা বলা শুরু করলাম, নানা ধরণের জায়গায়, তখন ওরা জানালো, এমন কেস তাদের কাছে সব সময়ই আসে। কাজেই এটা নিয়ে আসলে একটা অদ্ভুত নীরবতা ছিল‍।’ এরকম সমস্যার শিকার পরিবারগুলো হয়তো তাদের বন্ধুদেরও বিষয়টা বলতো না। সাবেক সোশ্যাল ওয়ার্কার হেলেন বনিক সন্তানের হাতে পিতা-মাতার সহিংসতার শিকার হওয়ার বিষয়ে একটি বই লিখেছেন। তিনি বলেন, ‘এটা নিয়ে পরিবারগুলো এক ধরণের মারাত্মক লজ্জায় ভুগতো।’ ‘বাবা-মা হিসেবে আপনার দায়িত্ব আপনার শিশুকে সমাজের একজন দায়িত্বশীল নাগরিক হিসেবে গড়ে তোলা। তাকে একজন মানবিক, দয়ালু, পরোপকারী মানুষ হিসেবে বড় করা। যদি এটা করতে না পারেন, তখন লোকে ভাববে এটা বাবা-মার ব্যর্থতা। কাজেই এরকম সমস্যা নিয়ে আসলে বাবা-মা কথা বলতে চান না। আর যেহেতু এটা নিয়ে কেউ কথা বলে না, তখন আপনার হয়তো মনে হতে পারে এরকম সমস্যাতে বুঝি শুধু আমি একাই আছি।’ পারিবারিক সহিংসতা বা ঘনিষ্ঠ সঙ্গীর হাতে সহিংসতার শিকার হওয়ার মতোই সন্তানের হাতে বাবা-মার সহিংসতার ঘটনা ধনী-গরীব নির্বিশেষে সমাজের সব স্তরেই ঘটে। যেসব শিশু সমাজসেবা দফতরের তত্ত্বাবধানে বড় হচ্ছে, এটা কেবল তাদের ক্ষেত্রেই ঘটে বলে ধরে নিলে ভুল করা হবে। একটি দাতব্য সংস্থা ‘প্যারেন্টাল এডুকেশন গ্রোথ সাপোর্টের’ সঙ্গে কাজ করেন মিশেল জন। এই সংস্থাটি এ ধরণের সহিংসতার শিকার পরিবারগুলোকে সাহায্য করে। মিশেল জন বলছেন, তাদের সংস্থা দত্তক পরিবারের চাইতে জন্মদাতা পরিবারকেই আসলে অনেক বেশি সাহায্য করেন। হ্যাজেলের পরিবারে যেমনটা ঘটেছে, বেশিরভাগ পরিবারেও আসলে মায়েরাই এরকম সহিংসতার টার্গেট হন বেশি। ‘সব ধরণের পারিবারিক সহিংসতার ক্ষেত্রেই মেয়েরাই শিকার হওয়ার সম্ভাবনা বেশি, এবং এক্ষেত্রেও ব্যাপারটা তাই’, বলছেন র‍্যাচেল কন্ড্রি। ‘এটা বাবাদের বেলায়ও ঘটে, কিন্তু সন্তানের হাতে সহিংসতার শিকার সচরাচর মায়েরাই বেশি হন।’ এখন স্থানীয় কোন স্কুলই আর এইডানকে ভর্তি করতে চাইছে না। এলাকার সব বিশেষ স্কুলই হয় তাকে ফিরিয়ে দিয়েছে অথবা বহিস্কার করেছে। সবচেয়ে কাছের যে স্কুলে এখন সে যেতে পারবে, সেটা গাড়িতে প্রায় আধঘন্টার পথ। আর এইডানের সমস্যা যেরকম জটিল, সেই স্কুলে আসলে তার জন্য যথেষ্ট ব্যবস্থাও নেই। ‘ওরা আসলে এইডানকে কোন রকমে সামলে রাখছে, ওর সমস্যার কোন সমাধান হচ্ছে না’, বলছেন হ্যাজেল। পড়াশোনার দিক থেকে এইডান ওর বয়সী শিশুদের তুলনায় তিন-চার বছর পিছিয়ে আছে। তবে ওর হাতের লেখা খুব সুন্দর। এরকম সহিংসতার শিকার আরও বহু পরিবার এইডানের সহিংস আচরণ কীভাবে কমিয়ে আনা যায়, তার কিছু কৌশল শেখার জন্য হ্যাজেল একটি প্রশিক্ষণ নিয়েছেন নিজের অর্থ খরচ করে। একটা কৌশল হচ্ছে, এইডান যাতে তাকে আঘাত দিতে না পারে, সেজন্য একটি বড় সোফা কুশন ধরে রাখা। ‘প্রথম দিন ও আমার কাছ থেকে কুশনটা কেড়ে নিয়ে সেটা দিয়েই আমাকে আঘাত করলো। তখন আমি ভাবলাম, কুশনটা আমাকে আরো জোরে ধরে রাখতে হবে। দ্বিতীয়বার এই কৌশলটা বেশ কাজ করলো। আমাদের দুজনের মাঝখানে আমি কুশনটা ধরে রাখলাম। এইডান ওটার ওপর দিয়ে ঘুষি মারছিল, লাথি মারছিল, সেটাকে পাশ কাটিয়ে আমাকে আঘাত করার চেষ্টা করছিল, তবে পারছিল না।’ হ্যাজেল দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করেন, তার সন্তান খারাপ কোন মানুষ নয়। কিন্তু অতীতে এমন কিছু ঘটেছে, যার কারণে হয়তো এইডানের ওপর এরকম প্রভাব পড়েছে, এটা তার দোষ নয়। ‘যদিও মনে হতে পারে ও একজন উৎপীড়ক, কিন্তু আসলে তা নয়, ও আসলে নিজেকে সামলাতে পারে না। ও আসলে এত মিষ্টি স্বভাবের এক শিশু, এত আদরের, এত মজার। আমরা দুজনে আসলে দুজনকে ভালোবাসি।’ কিন্তু এই সমস্যার ধকলের কারণে হ্যাজেলকে তার চাকুরি ছাড়তে হয়েছে। তার স্বাস্থ্য ভেঙ্গে পড়েছে। তার কুঁচকিতে ঘা হয়েছে কয়েকবার, গত বছর নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়েছেন একাধিকবার। তিনি এখন বিষণ্নতায় ভুগছেন, তাকে ঔষধ খেতে হচ্ছে। স্বামীর সঙ্গে সম্পর্কে টানাপোড়েন তৈরি হয়েছে। ‘আমরা যখন প্রথম বুঝতে পারলাম অনেক সমস্যা আছে এবং এগুলো বেশ কঠিন, তখন আসলে আমরা দুজনেই অনুভব করছিলাম আমরা ভুল করেছি এবং আমরা এটা নিতে পারছিলাম না। কিন্তু এই সমস্যার কথা মুখ ফুটে বললে আপনাকে তো কিছু একটা করতে হবে, কাজেই আমরা কেউই আর মুখ ফুটে সমস্যাটার কথা বলিনি। আমরা আসলে ছয় মাস পর্যন্ত একজন আরেকজনের সঙ্গে কথা পর্যন্ত বলিনি।’ সমস্যা আছে বুঝবেন কেমন করে? একজন শিশুর আচরণ যখন হুমকিজনক, ভীতিকর, এবং অনিরাপদ হয়ে উঠে, তখন এটি আর স্বাভাবিক কোন আচরণ নয়। 'হু ইজ ইন চার্জ' কর্মসূচী এমন কিছু লক্ষণের দিকে নজর রাখতে বলেছে:

  • আপনার সন্তানের সঙ্গে সংঘাত এড়াতে আপনি নিজের আচরণ বদলাচ্ছেন
  • নিজের নিরাপত্তা অথবা পরিবারের অন্য সদস্যদের নিরাপত্তা নিয়ে আপনি ভয়ে আছেন
  • আপনার সন্তান চুরি করছে বা পরিবারের অন্য সদস্যদের জিনিস নষ্ট করছে
  • আপনাকে বা পরিবারের অন্য সদস্যকে হুমকি দিচ্ছে
  • শিশুটি নিজে নিজের ক্ষতি করবে বলে হুমকি দিচ্ছে অথবা ঝুঁকিপূর্ণ আচরণ করছে-এরকম হুমকি সবসময় গুরুত্বের সঙ্গে নিন
  • পোষা প্রাণীর সঙ্গে নিষ্ঠুর আচরণ করছে

কয়েক বছর আগে অনেক চিন্তাভাবনার পর হ্যাজেল একটা চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছিলেন। ‘আমাদের পুরো পরিবারের ওপর এটা কেমন প্রভাব ফেলছে, সেটা আমরা দেখতে পাচ্ছিলাম। তখন আমি ঠিক করলাম যে আমি এইডানকে নিয়ে চলে যাব‍।’ হ্যাজেলের স্বামী তাকে বুঝিয়ে-শুনিয়ে এই কাজ থেকে নিরস্ত করলেন। হ্যাজেল এখন স্বীকার করেন, এটাই ছিল সঠিক সিদ্ধান্ত। কিন্তু তারপরও পরিবারের অন্য সন্তানদের জন্য তার মধ্যে একধরণের অপরাধবোধ কাজ করে। ‘তাদের শৈশবকে আমরা আসলে ঝুঁকির মধ্যে ফেলে দিয়েছি’, বলছেন হ্যাজেল। করোনাভাইরাস মহামারি শুরুর অনেক আগে থেকেই হ্যাজেল এবং তার পরিবার অন্য মানুষের বাড়ি যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছেন। তারা এখন আর বড় কোন পারিবারিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন না, অন্য কারও অনুষ্ঠানেও যান না। এইডান যখন স্কুলে থাকে, তখনই কেবল হ্যাজেল নিজের বাবা-মাকে দেখতে যান। কারণ হ্যাজেলকে তারা সামলাতে পারেন না। আর হ্যাজেল কখনোই এইডানকে নিয়ে অন্য কোন বন্ধুর বাড়িতে যান না, যেখানে অন্য কোন শিশু আসতে পারে। হ্যাজেল এবং তার স্বামী আর বাইরে রাত কাটাতে যেতে পারেন না, সাপ্তাহিক ছুটির দিনেও কিছু করতে পারেন না। কারণ এইডানকে কার কাছে রেখে যাবেন? তাকে কেউ সামলাতে পারে না। ‘এটা মারাত্মক এক নিঃসঙ্গতা’, বলছেন হ্যাজেল। তবে এক অনলাইন কমিউনিটিতে হ্যাজেল কিছুটা সান্ত্বনা খুঁজে পেয়েছেন, যেখানে তিনি তার মতো অন্য বাবা-মার সঙ্গে অভিজ্ঞতা শেয়া করতে পারেন। ‘আমাদের মতো অবস্থায় যে আরও অনেক মানুষ আছে, এটা জানার পর যেন আমাদের চোখ খুলে গেল। আমাদের মতো এরকম অনেক, অনেক পরিবার আছে।’ হ্যাজেল একটা স্প্রেডশীটে এইডানের ব্যাপারে বিভিন্ন সংস্থার নানা সিদ্ধান্তের হিসেব রাখেন। এইডানকে কিভাবে সাহায্য করা যায়, সেটা নিয়ে সারাক্ষণ নিজেকে ব্যস্ত রাখেন। ‘সন্তানের হাতে বাবা-মার সহিংসতার শিকার হওয়ার বিষয়টি দেখভালের দায়িত্ব কারও উপরেই নেই, আবার এটা আসলে সবারই দায়িত্ব। কারণ এমন কোন সেবা বা সংস্থা নেই, যাদের ওপর এর প্রাথমিক দায়িত্ব বর্তায়। আমার মনে হয় এটা একটা বাস্তব সমস্যা’, বলছেন র‍্যাচেল কন্ড্রি। হ্যজেলের পরিবার এখন ভরসা করছে এইডানকে একটা আবাসিক স্কুলে ভর্তি করার ওপর। এইডানের মতো শিশুদের এই স্কুল তিন বছরের মধ্যে পুরোপুরি পুনর্বাসন করে। তিন বছর এই স্কুলে থাকার পর শিশুরা তাদের বাড়িতে ফিরে যেতে পারে, নিজের পরিবারের সঙ্গে থাকতে পারে, আবার স্বাভাবিক কোন স্কুলে যেতে পারে। হ্যাজেল বলেন, ‘আমি আসলে চাই এইডান এমন কোন স্কুলে যাক, যারা ওকে সাহায্য করবে, ওকে সুস্থ করে তুলবে।’ কিন্তু এই আবাসিক স্কুলে ভর্তির নিয়মকানুন বেশ কড়া এবং জটিল। যদি এইডানকে এই স্কুলে না নেয়া হয়, তখন কী হবে, তা নিয়ে হ্যাজেল চিন্তিত। ‘এইডান হয়তো ওর সঙ্গীর সঙ্গেও নিপীড়নমূলক আচরণ করবে, পুলিশের সঙ্গে ঝামেলায় জড়াবে।’ ‘ও হয়তো মারামারি করে জেলে যাবে, সেটাই আমি দেখতে পাই।’ তবে আপাতত হ্যাজেল পরিস্থিতি যাতে আয়ত্ত্বের বাইরে না যায়, সেই চেষ্টাই করছেন। এইডান যখন স্কুলে যায়, তখন হ্যাজেল তার কুকুর নিয়ে হাঁটতে যান, এরপর এইডান ফেরার আগে নিজেকে মানসিকভাবে প্রস্তুত করার চেষ্টা করেন। এইডান ঘরে ফিরেই হয়তো সবকিছু তছনছ করে দেবে, ফলের ঝুড়িটা ছুঁড়ে ফেলবে, রেলিং এর ওপর দিয়ে লাফ দিয়ে পড়বে। শান্ত কোন রাতে এইডান তার অডিও বই শোনে, একই গল্প বার বার শোনে, শুনতে শুনতে আবার বইটার পাতাও উল্টাতে থাকে। এরপর যখন ঘুমের সময় হয়, নীচের তলার সব দরোজায় তালা লাগিয়ে দেয়া হয়, যাতে রাতে এইডানের ঘুম ভাঙ্গলেও নীচে গিয়ে কুকুরটাকে বিরক্ত করতে না পারে। এইডানের গোপনীয়তা রক্ষার জন্য এই প্রতিবেদনে ছদ্মনাম ব্যবহার করা হয়েছে। সূত্র: বিবিসি

শিরোনাম:

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা
দিল্লী সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী
খালেদা জিয়ার অবস্থা আশঙ্কাজনক: মির্জা ফখরুল
ঐতিহাসিক ছয় দফা দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা প্রধানমন্ত্রীর
ইউআইইউ’তে পোস্ট বাজেট ২০২৪-২০২৫ আলোচনা অনুষ্ঠিত
টিকটকার প্রিন্স মামুন গ্রেপ্তার
বাংলাদেশীদের ১০ ক্যাটাগরিতে ভিসা নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছে ওমান
আন্তর্জাতিক ফটোগ্রাফি প্রদর্শনী ফটো ফেস্ট এশিয়া ২০২৪
বিএনপির মিডিয়া সেলের আহ্বায়ক ডা. মওদুদ
সুপার এইটে বাংলাদেশ
সিলেটের পর্যটনকেন্দ্রগুলো আবারো বন্ধ ঘোষণা
আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর শোভাযাত্রায় মানুষের ঢল
প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসান শপথ নিবেন আজ
আবারো বাড়ল এলপিজি সিলিন্ডারের দাম
ইউআইইউ’তে “ঢাকা শহরে বৃষ্টির পানি ব্যবস্থাপনায় রূপান্তরমূলক পরিবর্তন” শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত
দেশের অর্থনীতিতে এসব কী ঘটছে
টাইগারদের বিপক্ষেও না খেলার সম্ভাবনা বেন স্টোকসের
গাজায় আক্রমণ সবে শুরু: নেতানিয়াহু
পিটার হাসের সাথে মির্জা ফখরুলের বৈঠক
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হলেন ড. মাকসুদ কামাল
নতুন করে এমপিওভুক্ত হলো ৯১ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান
বাংলাদেশে সন্ত্রাসী-অগ্নিদানবদের ঠাঁই নাই: শাজাহান খান
দুর্গাপূজা আগামীকাল শুরু
চীনের জিংদেজেনে আন্তর্জাতিক সিরামিক মেলা ২০২৩ অনুষ্ঠিত
ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি (ইউআইইউ)-এর নতুন উপাচার্য হিসেবে যোগ দিলেন অধ্যাপক ড. মোঃ আবুল কাশেম মিয়া
দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের তফসিল নভেম্বরে
রাতেই আঘাত হানতে পারে ‘হামুন’: দুর্যোগ প্রতিমন্ত্রী
রাস্তা নয়, মাঠে সমাবেশ করতে ডিএমপির পরামর্শ
গাজায় ‘মানবিক যুদ্ধবিরতির’ আহ্বান জাতিসংঘের
বাড়ি ফেরার পথে চিকিৎসককে ছুরিকাঘাতে হত্যা
বাংলাদেশের নির্বাচনী পরিবেশ পর্যবেক্ষণ করছে যুক্তরাষ্ট্র
তরুণ উদ্ভাবন ও উদ্যোক্তার উৎসব অনুষ্ঠিত সিইউবি-তে
আয়েশা আবেদ লাইব্রেরি ও ওপেন সোসাইটি নেটওয়ার্কের ওপেন অ্যাকসেস উইক ২০২৩ উদযাপন
বাংলাদেশে সুষ্ঠু নির্বাচন যুক্তরাষ্ট্রের প্রত্যাশা: মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর
অসমাপ্ত কাজ শেষ করতে নৌকায় ভোট চাই
জাতীয় পরিচয়পত্র থাকলেই ভোটার নয়, বয়স হতে হবে ১৮ বছর বা তদূর্ধ্ব
আজ সন্ধ্যায় তফসিল ঘোষণা
লক্ষ্মীপুর-৪ আসনে নৌকার মনোয়ন ফরম জমা দিলেন অনু
শীর্ষ ডেটা স্টোরেজ প্ল্যাটফর্মের স্বীকৃতি পেল হুয়াওয়ে ওশানস্টোর প্যাসিফিক
ইউআইইউ এবং সাউথ এশিয়া সেন্টার ফর মিডিয়া ইন ডেভেলপমেন্টের মধ্যে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত
সারাদেশে র‌্যাবের ৪৩৫ টহল দল মোতায়েন
ফোর্বসের শীর্ষ ক্ষমতাধর নারীদের তালিকায় শেখ হাসিনা ৪৬তম
আজ বেগম রোকেয়া দিবস
মৃত্যুর পরও নিজেকে ব্যবহার করতে চাই: স্পর্শিয়া
ইসলামে স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্ক বন্ধুত্বের
নর্দান ইউনিভার্সিটিতে বিজয় দিবস উদযাপন
নর্দান ইউনিভার্সিটিতে ইংলিশ ফেস্ট-২০২৩
৩০টি দেশে নির্বাচন ২০২৪ সালে
নির্বাচন করতে পারবেন না ইমরান খান
৯ জানুয়ারি থেকে এক মাস মেডিকেল ভর্তি কোচিং বন্ধ
পাকিস্তানে টিকটককে হারাম ঘোষণা
জানুয়ারির শুরুতে বাড়তে পারে শীত
জার্মান আওয়ামী লীগের উদ্যোগে বার্লিনে মহান বিজয় দিবস পালন
আতশবাজি-ফানুসে নতুন বছর উদযাপন
নির্বাচনকালীন যানবাহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞা
শেখ হাসিনা ২,৪৯,৯৬২ ভোট পেয়ে বিজয়ী
নতুন সরকারের শপথ ১০-১৪ জানুয়ারির মধ্যে
ফ্রান্সের ইতিহাসে সবচেয়ে কম বয়সে প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন আতাল
শপথ নিলেন নবনির্বাচিত সংসদ সদস্যরা
প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা হিসেবে নিয়োগ পেলেন যারা
সব চাপ মোকাবিলার ক্ষমতা সরকারের আছে: কাদের
ডুবে যাওয়া রজনীগন্ধা ফেরি থেকে উদ্ধার ৬
৪৬তম বিসিএস প্রিলির তারিখ জানাল পিএসসি
বিচ্ছেদ গুঞ্জনের মাঝে ফের বিয়ে করলেন শোয়েব
ঢাকায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রার রেকর্ড
বিএসএফের গুলিতে বিজিবি সদস্য নিহত
ইউআইইউ’তে ইংলিশ অলিম্পিয়াড অনুষ্ঠিত
মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনে যোগ দিতে জার্মানি যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী
স্থায়ী জামিন পেলেন ড. ইউনূস
মঙ্গলবার থেকে ফের শুরু হচ্ছে বৃষ্টি
পাকিস্তানে স্বতন্ত্র প্রার্থীকে গুলি করে হত্যা
প্রধানমন্ত্রী আজ রাতে মিউনিখ ত্যাগ করবেন
রমজানে অফিস চলবে সকাল ৯ টা থেকে সাড়ে তিনটা পর্যন্ত
বিপিএলের নতুন চ্যাম্পিয়ন বরিশাল
ইভ্যালির রাসেল-শামীমার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা
এক ঘণ্টা পর ফিরলো ফেসবুক
বিজনেস ম্যাভেন অ্যাওয়ার্ড পেলেন প্রকৌ. পারভীন আক্তার ময়ন
ইউআইইউ’তে নবায়নযোগ্য জ্বালানির উন্নয়ন ও প্রযুক্তি বিষয়ক আন্তর্জাতিক সম্মেলন
রোজায় বন্ধ স্কুল, খোলা থাকবে মাদরাসা: হাইকোর্ট
আগামীকাল থেকে পবিত্র মাহে রমজান শুরু
কত টাকা থাকলে জাকাত দিতে হবে?
রাশিয়ায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শুরু
জবি শিক্ষার্থী অবন্তিকার আত্মহত্যা: সহপাঠীকে গ্রেফতারের নির্দেশ
ইসলামিক ফোরাম রোম মহানগরী পশ্চিম এর ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত
সাউথইস্ট ইউনিভার্সিটিতে জমির মালিকানায় নারীর ক্ষমতায়ন শীর্ষক সেমিনার
ইসলামে জাকাত ও ফিতরা
প্রধানমন্ত্রীর সমরাস্ত্র প্রদর্শনী উদ্বোধন
বীর শহীদদের প্রতি রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী ও ভুটানের রাজার শ্রদ্ধা
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে টানা ২৬ দিনের ছুটি শুরু
ছাত্ররাজনীতি বন্ধসহ ৬ দাবি বুয়েট শিক্ষার্থীদের
লাইলাতুল কদর অনুসন্ধানের দশক শুরু
তথ্য-ন্যায্য সমাজ গঠনে এগিয়ে আসুন: সোনিয়া কুইপ
রমজানের শেষ দশকে রাসূলুল্লাহ সা:-এর আমল
থানচি ছেড়ে নিরাপদ স্থানে যাচ্ছে লোকজন
ঢাকা-ব্রাজিল সামগ্রিক সহযোগিতা চুক্তি স্বাক্ষর
আগামীকাল পবিত্র ঈদুল ফিতর
ইসরায়েলে মার্কিন কুটনীতিকদের জন্য ভ্রমণ সতর্কতা
মিশিগানে পুলিশের গুলিতে বাংলাদেশি যুবক নিহত
ফরিদপুরে বাস-পিকআপ ভ্যান সংঘর্ষে নিহত ১৪
মুজিবনগর দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন প্রধানমন্ত্রীর
সাউথইস্ট ইউনিভার্সিটির নতুন প্রো ভিসি অধ্যাপক এম মোফাজ্জল হোসেন
দেশব্যাপী তাপপ্রবাহ নিয়ে সতর্কতা জারি করেছে আবহাওয়া অফিস
রমজান পরবর্তী আমল
প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে কাতারের আমির
ভারতের ৫২৭টি খাদ্যপণ্যে ‘বিষ’ পেয়েছে ইইউ
এক মিনিটের জন্য শেষ বিসিএসের স্বপ্ন
আরো ৭২ ঘণ্টার হিট অ্যালার্ট জারি
মিল্টন সমাদ্দার ৩ দিনের রিমান্ডে
পেঁয়াজ রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করলো ভারত
বিদেশ যাওয়ার অনুমতি পেলেন আমানউল্লাহ আমান
তেঁতুলিয়া সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে ২ বাংলাদেশি নিহত
বঙ্গবন্ধুর প্রতি প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা
আজ বিশ্ব মা দিবস
ফিলিস্তিনিদের মৌলিক স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করুন: প্রধানমন্ত্রী
শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আজ
এভারেস্ট জয় করলেন বাবর আলী
হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়ে রইসি-আব্দুল্লাহিয়ান নিহত
৪ জুলাই পর্যন্ত জামিন পেলেন ড. ইউনূস
অতিপ্রবল ঘূর্ণিঝড় ’রেমাল’, ১০ ফুট জলোচ্ছ্বাসের শঙ্কা
তৃতীয় ধাপে উপজেলা নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে
বাংলাদেশ জাতিসংঘের গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার: গুতেরেস
ইউআইইউতে ‘ইন্টারন্যাশনাল লিডারশিপ প্রোগ্রাম অন এডুকেশন’ সামিট
প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট পেতে যাচ্ছে মেক্সিকো
‘ইউআইইউ মার্স রোভার টীম’ এশিয়ায় টানা তৃতীয়বার চ্যাম্পিয়ন
হুয়াওয়ের ‘উইমেন ইন টেক’ প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের নাম ঘোষণা
ব্র্যাক ইউনিভার্সিটিতে দুই দিনব্যাপী ক্যারিয়ার ফেয়ার শুরু
ব্র্যাক ইউনিভার্সিটিতে বিশ্ব পরিবেশ দিবস-২৪ উপলক্ষ্যে সিম্পোজিয়াম
জয় দিয়ে বিশ্বকাপ শুরু বাংলাদেশের
বায়তুল মুকাররমে পবিত্র ঈদুল আজহার ৫টি জামাত অনুষ্ঠিত হবে
সুপার এইটে এক পা বাংলাদেশের
সাগরে মিয়ানমারের যুদ্ধ জাহাজ
জাতীয় ঈদগায় ঈদের প্রধান জামাত সকাল সাড়ে ৭টায়
ক্রিকেটার নাসিরের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ আইসিসির
মারা গেছেন আইনজীবী ভূবন চন্দ্র
যথাযোগ্য মর্যাদায় দেশব্যাপী পবিত্র ঈদুল আজহা উদযাপিত
বাংলাদেশে নতুন উদ্ভাবিত ডায়গনিস্টিক পরীক্ষার সফল যাত্রা শুরু!
মার্কিন নিষেধাজ্ঞায় ভয়ের কিছু নেই বলছেন প্রধানমন্ত্রী
প্রধানমন্ত্রী ভারত সফরে যাচ্ছেন আজ
আবারও চালু হলো টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌ-রুটে পর্যটকবাহী জাহাজ
বাংলাদেশে ভিসানীতিতে যুক্ত হবে গণমাধ্যমও: পিটার হাস
বিশ্বকাপ দলে তানজিম হাসান সাকিব
বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দল
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৭তম জন্মদিন আজ
টাইমস হায়ার এডুকেশন ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি র‌্যাঙ্কিং ২০২৪ এ দেশ সেরা ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি
কুড়িগ্রামে ছাত্রলীগ - বিএনপি সংঘর্ষ, আহত ২০
ইউআইইউতে ফল-২০২৩ শিক্ষার্থীদের নবীনবরণ অনুষ্ঠিত
সিসিইউ থেকে কেবিনে নেয়া হয়েছে খালেদা জিয়াকে
প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানিয়েছে যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ
ইউল্যাব- ইউএনএইচসিআর এর যৌথ আয়োজনে ৫ সপ্তাহব্যপী মোবাইল চলচ্চিত্র
টাইগারদের বিপক্ষেও না খেলার সম্ভাবনা বেন স্টোকসের
পদার্থে নোবেল পেলেন তিন বিজ্ঞানী
ইউল্যাবে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আইডিয়া হান্টার্স ৩.০
রংপুর পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের অধ্যক্ষ অবরুদ্ধ
রাজধানীর শাপলাচত্বরে শিবিরের বিশাল শোডাউন
আগামীকাল গাজায় স্থল হামলা শুরু করবে ইসরাইল
পিরোজপুর ১ ও ২ আসনের সীমানা নির্ধারণ বৈধ: আপিল বিভাগ
ব্র্যাক ইউনিভার্সিটির “ইউনিভার্সিটি ইনোভেশন হাব-স্মার্ট ইউনিবেটর”র ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন প্রধানমন্ত্রী
নির্বাচনকালীন সরকার কেমন হবে?
চীনা মাটির শহর জিংদেজেন
বাংলাদেশ বার কাউন্সিল ভবন উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
বিএনপির মহাসমাবেশ নিয়ে নাশকতার কোনো শঙ্কা নেই: ডিবি প্রধান
আগামীকাল ব্রাসেলস সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
সাবেক যোগাযোগমন্ত্রী সৈয়দ আবুল হোসেন আর নেই
বেলজিয়াম সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী
মির্জা ফখরুল আটক
সব পক্ষ শর্তহীন সংলাপে বসে শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের পথ খুঁজে নেবে: আশা পিটার হাসের
ইউল্যাব সোশ্যাল ওয়েলফেয়ার ক্লাব-এর রক্তদান কর্মসূচি ২০২৩
ব্র্যাক বিজনেস স্কুলে অনুষ্ঠিত হলো “উদ্যমী আমি” এর কোহর্ট ৪ এর সমাপনী অনুষ্ঠান
উচ্চ শিক্ষার জন্য জার্মানি কেন পছন্দের শীর্ষে
শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটকে নিষিদ্ধ করলো আইসিসি
পিটার হাসকে হুমকি: ৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা
ইউল্যাবের জেনারেল এডুকেশন বিভাগের ৩য় বিএসএসসিআর কনফারেন্সে যোগদান
দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন তফসিল ঘোষণা, নির্বাচন ৭ জানুয়ারি
নির্বাচন নিয়ে বিদেশিদের মতামতে আমাদের মাথাব্যাথা নেই: কাদের
দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচন: কুমিল্লা-১০ আসনে আ’লীগের মনোনয়ন জমা দিলেন ইঞ্জিনিয়ার কামাল পাশা
২৯৮ আসনে আ.লীগের প্রার্থী তালিকা
চমক রেখে বাভুমাকে ছাড়াই দল ঘোষণা দক্ষিণ আফ্রিকার
ওয়ালটনে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি
রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট নির্বাচন ১৭ মার্চ ২০২৪
স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে নর্দান ইউনিভার্সিটিতে সিএসই ডে পালন
হুয়াওয়ের সাসটেইনেবিলিটি ফোরামে ডিজিটাল প্রযুক্তির ওপর গুরুত্বারোপ
শীতকালে ঘন ঘন ক্ষুধা লাগে কেন?
মহান বিজয় দিবসে রংপুর জেলা রোভারের শ্রদ্ধাঞ্জলি ও সেবা প্রদান
জার্মান আওয়ামী লীগ ‘হেসেন শাখা’র ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত
হযরত শাহজালাল ও শাহ পরানের মাজার জিয়ারত প্রধানমন্ত্রীর
৬ নেতার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করল বিএনপি
আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্বাচনী সফরে আগামীকাল মঙ্গলবার পীরগঞ্জ সফরে যাচ্ছেন। 
কিউইদের মাটিতে টাইগারদের দাপুটে জয়
সারা দেশে ১১৫১ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন
২ হাজার মার্কিন ডলার তহবিল পেলেন ব্র্যাক ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থী
আইকিউএসি ফাংক্সন নিয়ে নর্দান ইউনিভার্সিটির সেমিনার
আজ দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন
প্রত্যাশার চেয়ে নির্বাচন ভালো হয়েছে: সিইসি
নবনির্বাচিত সংসদ সদস্যদের শপথগ্রহণ বৃহস্পতিবার
মির্জা ফখরুল জামিন পাননি
মেডিক্যালে ভর্তির আবেদন শুরু
৮ ফেব্রুয়ারি পবিত্র শব-ই-মিরাজ
ইভ্যালির রাসেল-শামীমার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা
দূষণে দ্বিতীয় ঢাকা
অস্ট্রেলিয়াকে হারাল বাংলাদেশ
জিয়াউর রহমানের ৮৮তম জন্মবার্ষিকী আজ
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী উপদেষ্টার বিজয়করা সফর
বিনা খরচে ২৬ হাজার শ্রমিক নিচ্ছে জার্মানি, আবেদনের নিয়ম
সিটি করপোরেশনসহ ২৩৩টি নির্বাচনের তপশিল ঘোষণা
‘শরিফার গল্প’ পর্যালোচনায় ৫ সদস্যের কমিটি 
নর্দান ভার্সিটিতে সাপ্লাই চেইন ম্যানেজমেন্টে নিয়ে গোলটেবিল বৈঠক
ইউআইইউতে ‘ক্রিটিকাল থিংকিং’ শীর্ষক কর্মশালা অনুষ্ঠিত
দ্বাদশ সংসদের প্রথম অধিবেশনে আজ ভাষণ দেবেন রাষ্ট্রপতি
ভাগাভাগি করে প্রধানমন্ত্রী হবেন নওয়াজ ও বিলাওয়াল
ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ৭ম সমাবর্তন অনুষ্ঠিত
বেইলি রোডের আগুন নিয়ন্ত্রণে
সস্ত্রীক সিঙ্গাপুর যাচ্ছেন মির্জা ফখরুল
সাউথইস্ট ইউনিভার্সিটি’র স্প্রিং সেমিস্টারের নবীন বরণ
বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ শুধু ভাষণই নয় বরং একটি মহাকাব্য
ঐতিহাসিক ৭ মার্চ আজ
সেভ দ্য রোড-এর সমাবেশে গণপরিবহনে ৩৫% নারী আসন নিশ্চিতের দাবি
সুপ্রিম কোর্টে মারামারি: ৩ সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল বরখাস্ত
আজ থেকে নতুন সময়ে সরকারি অফিস-ব্যাংক-আদালত
টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা
জলদস্যুদের হাতে জিম্মি জাহাজ আব্দুল্লাহ বিস্ফোরণের আশঙ্কা
হলমার্ক কেলেঙ্কারি: তানভীর-জেসমিনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড
দেশসেরা স্থপতিদের আলোচনায় ব্র্যাক ইউনিভার্সিটির নতুন ক্যাম্পাস
দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী কেজরিওয়াল ৭ দিনের রিমান্ডে
সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী
আগামী বছর থেকে শনিবার খোলা থাকতে পারে স্কুল
ঈদযাত্রায় দুর্ভোগ কমাতে ছুটি দুই দিন বাড়ানোর দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছে বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতি
আবাসিক কোয়ার্টার থেকে ঢাবির শিক্ষার্থীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার
আবাসিক কোয়ার্টার থেকে ঢাবির শিক্ষার্থীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার
চলতি বছরের উচ্চমাধ্যমিক সার্টিফিকেট (এইচএসসি) ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হবে আগামী ৩০ জুন
ঈদের ফিরতি ট্রেনের টিকিট বিক্রি শুরু
আজ ইসরাইলে হামলা চালাবে ইরান
স্বাধীনতা দিবস এবং গণহত্যা দিবস পালন করলো ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি
বুধবার ঈদ উদযাপন করবেন চাঁদপুরের অর্ধশত গ্রামবাসী
আজ পবিত্র ঈদুল ফিতর
দেশবাসীকে বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা প্রধানমন্ত্রীর
সদরঘাটে ঢাকায় ফেরা যাত্রীর চাপ বাড়ছে
গরমের সময় বড় আতঙ্ক সোডিয়ামের ঘাটতি
মধ্যরাতে ১ ঘণ্টা ধীরগতি থাকবে ইন্টারনেট
ঢাকায় ভিসা সেন্টার চালু করেছে চীনা দূতাবাস
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ব্যাটারি কমপ্লেক্সের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
ইউআইইউ’তে অগ্নি নির্বাপণ মহড়া অনুষ্ঠিত
ইসলামে যে বয়সে প্রাপ্তবয়স্ক গণ্য হয়
সাদি মহম্মদের স্মৃতির প্রতি ব্র্যাক ইউনিভার্সিটির শ্রদ্ধাঞ্জলি
শনিবার বন্ধ থাকবে প্রাথমিক বিদ্যালয়
রুয়েট ও আহসানুল্লাহ বিশ্ববিদ্যালয়ে হুয়াওয়ের ক্যাম্পাস নিয়োগ
মুক্তি পেলেন মাওলানা মামুনুল হক
সুন্দরবনে আগুন নিয়ন্ত্রণে ৫ ইউনিট
প্রথম ধাপে ১৪১ উপজেলায় ভোট গ্রহণ আগামীকাল
উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন যারা
জার্মানিতে বাংলাদেশি চার ভাইয়ের ইতালিয়ান - জার্মান রেস্টুরেন্ট
তাসকিনকে নিয়েই বিশ্বকাপের দল ঘোষণা
দুই দিনের সফর শেষে ঢাকা ছাড়লেন ডোনাল্ড লু
মিষ্টি জান্নাতকে ‘চুমু’ প্রসঙ্গে যা বলছেন জয়
সাউথইস্ট ইউনিভার্সিটির নতুন উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইউসুফ মাহবুবুল ইসলাম
শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়ের আশঙ্কা
আওয়ামী লীগ অপরাধীকে প্রটেকশন দেয় না: কাদের
রাফায় বিমান হামলা: নিরাপত্তা পরিষদে জরুরি বৈঠক
উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে তৃতীয় ধাপের জয় পেলেন যারা
সুন্দরবনে ৩ মাসের জন্য প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা
প্রস্তুতিতেই ভারতের বিপক্ষে বড় হার বাংলাদেশের
জাতীয় ফল মেলা শুরু হচ্ছে বৃহস্পতিবার
দ্বাদশ জাতীয় সংসদের বাজেট অধিবেশন বসছে আজ
সাউথইস্ট ইউনিভার্সিটিতে বাংলাদেশের কিশোর গ্যাং সংস্কৃতি নিয়ে সেমিনার
সাউথইস্ট ইউনিভার্সিটি ও ইউনাইটেড হাসপাতাল লিমিটেডের মধ্যে চুক্তি
স্বাস্থ্য উন্নয়নে বাংলাদেশ সরকারের প্রচেষ্টার প্রশংসা ‘হু’ প্রধান